আওয়ামীলীগের সংগ্রামী রাজনীতিবিদ ড. মিজানুল হক চলে গেলেন না ফেরার দেশে

রেজাউল হাবিব রেজা

যখন কোনো সঠিক নেতৃত্ব সমাজ থেকে হারিয়ে যায় তখন  মহা শূণ্যতায় ভূগে একটি সমাজ, একটি জাতি  !! সেই শূন্যতায় আমাদেরকে নিয়ে গেলেন ড. মিজানুল হক।

কিশোরগঞ্জ-৩ (করিমগঞ্জ-তাড়াইল) আসনের সাবেক সফল সাংসদ,  আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির তথ্য ও গবেষণা বিষয় সম্পাদক ডক্টর মিজানুল হক আর নেই (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তার বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ৬ টার দিকে কিশোরগঞ্জ শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যু বরণ করেন। তিনি দীর্ঘদিন যাবত কিডনি ও লিভার সমস্যাসহ নানা রোগে ভুগছিলেন।  গত ২০ আগস্ট তাঁকে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপতালে ভর্তি করা হয়েছিল।

তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে, এক মেয়ে, আত্মীয় স্বজনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। মরহুমের জানযার নামাজ আগামীকাল যোহরের নামাজের পর গুজাদিয়া গ্রামে নিজ বাড়িতে অনুষ্ঠিত হবে বলে তার ছোট ভাই এম সানাউল হক মুঠোফোনে জানিয়েছেন। তবে স্থানীয় সিদ্ধান্তকেও  তিনি মূল্যায়ন করবেন।

ডক্টর মিজানুল হক বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) সাবেক শিক্ষক ছিলেন। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির তথ্য ও গবেষণা বিষয় সম্পাদক ১৯৯১ ও ১৯৯৬ সনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কিশোরগঞ্জ-৩ (করিমগঞ্জ, তাড়াইল) আসনে আওয়ামী লীগ থেকে দুবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।

এই ক্ষণজন্মা রাজনীতিবিদের মৃত্যুতে  দেশের বিভিন্ন  সামাজিক-রাজনৈতিক -সাংস্কৃতিক -সাংবাদিক সংগঠন শোক প্রকাশ করেছেন।

বিশেষ করে করিমগঞ্জ ইতিহাস ওইতিহ্য সংরক্ষণ কমিটি,  কিশোরগঞ্জ ইতিহাস ওইতিহ্য সংরক্ষণ পরিষদ, যুদ্ধাপরাধ প্রতিরোধ আন্দোলন কমিটি, ভোরের আলো সাহিত্য আসর, জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা, বাংলাদেশ লিমেরিক ফোরাম পৃথক পৃথক বিবৃতিতে শোক প্রকাশ করেছেন।

তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন সাবেক বিপ্লবী ছাত্র নেতা,  গুরুদয়াল কলেজের সাবেক জিএস, বারবার কারাবরণকারী বঙ্গবন্ধুর আদর্শের পরীক্ষিত সৈনিক সাকাউদ্দীন আহমেদ রাজন, অন্যায় ও অসঙ্গতির বিরুদ্ধে লড়াকু সেনানী কিশোরগঞ্জ নাগরিক সুরক্ষা কমিটির আহবায়ক শেখ সেলিম কবীর, যুবলীগের সংগ্রামী নেতা প্রদীপ  কুমার বর্মণ। তৃণমূল আওয়ামীলীগ নেতা আহসান হাবীব, মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম জামিল আনসারী, মোঃ আল আমিন লিটনসহ অনেকেই।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.